ভূমি সংস্কার বোর্ড গণপ্রজাতন্ত্রী বাংলাদেশ সরকার
মেনু নির্বাচন করুন
Text size A A A
Color C C C C
সর্ব-শেষ হাল-নাগাদ: ১৮ এপ্রিল ২০১৭

প্রাতিষ্ঠানিক কার্যাবলী

 

কার্যকর পরিদর্শন ও নিবিড় তদারকির মাধ্যমে মাঠ পর্যায়ের ভূমি প্রশাসন ও ভূমি ব্যবস্থাপনায় স্বচ্ছতা আণয়ন,  সামগ্রিক কার্যক্রম গতিশীলকরণ, ভূমি উন্নয়ন করের লক্ষ্যমাত্রা নির্ধারণ ও আদায়ের অগ্রগতি মনিটরিং, ভূমি সংস্কার বিষয়ে সুপারিশমালা প্রণয়ন এবং ভূমি মালিকগণকে সর্বোত্তম সেবা দানে সহযোগিতা প্রদান এই প্রতিষ্ঠানের মূল লক্ষ্য।

 

এই প্রতিষ্ঠানের প্রতিষ্ঠানিক কার্যাবলী নিরূপণের ক্ষেত্রে সরকার ভূমি মন্ত্রণালয়ের স্মারক নং ভূঃমঃ/শা-১৫(ভূঃসঃবোঃ)২৩১/৮৮/৪১১ তারিখ ২৩-০৫-১৯৮৯ এর আদেশে ভূমি সংস্কার বোর্ড অধ্যাদেশ ১৯৮৯ (অধ্যাদেশ নং-১, ১৯৮৯) এর ৫(ক) ও ৫(খ) ধারায় অর্পিত ক্ষমতা বলে সরকারের তদারকি ও নিয়ন্ত্রণ সাপেক্ষে ভূমি সংস্কার বোর্ডের নিকট ভূমি ব্যবস্থাপনার মাঠ প্রশাসনসহ ১৭টি দায়িত্ব অর্পণ করে| উক্ত আদেশের ১(গ) অনুচ্ছেদে ভূমি সংস্কার বোর্ডকে জেলা ও উপজেলা পর্যায়ের সকল গেজেটেড ২য় শ্রেণী এবং নন-গেজেটেড কর্মকর্তা ও কর্মচারীদের নিয়োগ/ বদলী ও প্রশাসনিক নিয়ন্ত্রণের ক্ষমতা অর্পণ করা হয়েছিল| পরবর্তীতে ভূমি মন্ত্রণালয়ের স্মারক নং-ভূঃমঃ/শা-১২-৩৯/৯০/২৫ তারিখ-১৪-০১- ১৯৯২ এর আদেশ বলে ২৩-০৫-১৯৮৯ তারিখে জারিকৃত আদেশটি বাতিলপূর্বক ভূমি ব্যবস্থাপনায় মাঠ প্রশাসনসহ ১৫টি দায়িত্ব ভূমি সংস্কার বোর্ডকে অর্পণ করা হয়। এই গুরুত্বপূর্ণ আদেশটি নিম্নরূপঃ

 

১. ভূমি ব্যবস্থাপনায় মাঠ প্রশাসনঃ

(ক) বিভাগীয় পর্যায়ে উপ-ভূমি সংস্কার কমিশনারের কার্যালয়ের তত্ত্বাবধান|

(খ) জেলা হতে তহশীল অবধি সকল ভূমি অফিস ব্যবস্থাপনা তত্ত্বাবধান এবং পরিবীক্ষণ|

(গ) উপজেলা রাজস্ব কর্মকর্তা এবং অতিরিক্ত ভূমি হুকুম দখল কর্মকর্তাদের আন্তঃবিভাগীয় বদলী এবং প্রাক্তন ইপিসিএস ক্যাডার বহির্ভূত কর্মকর্তাদের প্রশাসনিক ব্যবস্থাদি (যেমন-দক্ষতাসীমা অতিক্রম, সিলেকশন গ্রেড, টাইমস্কেল, ছুটি, এলপিআর, পেনশন, শৃঙ্খলাজনিত কার্যক্রম ইত্যাদি) ভূমি সংস্কার বোর্ডের নিয়ন্ত্রণাধীন থাকিবে| তবে সংস্থাপন মন্ত্রণালয় কর্তৃক নিয়োগপ্রাপ্ত ২য় শ্রেণীর কর্মকর্তাগণের উল্লিখিত প্রশাসনিক ব্যবস্থাদি সংস্থাপন মন্ত্রণালয় কর্তৃক গৃহীত হবে|

(ঘ) ভূমি সংস্কার বোর্ডের তদারwক ও নিয়ন্ত্রণ সাপেক্ষে জেলা ও থানা পর্যায়ে সকল নন-গেজেটেড কর্মচারীদের (কানুনগো ব্যতীত) নিয়োগ বদলী এবং শৃঙ্খলাজনিত বিভাগীয় ও প্রশাসনিক কার্যক্রম জেলা পর্যায়ে জেলা প্রশাসক, বিভাগীয় পর্যায়ে বিভাগীয় কমিশনার গ্রহণ করিবেন| কানুনগোদের জেলা ভিত্তিক বদলী এবং অন্য প্রশাসনিক ব্যবস্থাদি (যেমন- দক্ষতাসীমা, টাইমস্কেল, এলপিআর, পেনশন, শৃঙ্খলাজনিত কার্যক্রম) ভূমি সংস্কার বোর্ডের তদারকি ও নিয়ন্ত্রণ সাপেক্ষে বিভাগীয় কমিশনারের নিয়ন্ত্রণাধীন থাকিবে| তাহাদের আন্তঃবিভাগীয় এবং আন্তঃদাপ্তরিক বদলী করিবেন ভূমি সংস্কার বোর্ড|

২. সিলিং বহির্ভূত জমি চিহ্নিতকরণ, সরকারের নিয়ন্ত্রণাধীন আণয়ন এবং এইগুলির জন্য ক্ষতিপূরণ নির্ধারণ ও প্রদানের ব্যবস্থা|

৩. খাসজমি চিহ্নিতকরণ, ভূমিহীনদের মধ্যে সরকারি নীতিমালা অনুযায়ী কৃষি খাসজমি বন্টন/খাসজমি ব্যবস্থাপনা এবং বেদখলী খাসজমি উদ্ধার ও বন্দোবস্ত প্রদান|

৪. খাস পুকুর ও বেদখলীয় খাস পুকুর উদ্ধার ও ব্যবস্থাপনা|

৫. বর্গা আইন বাস্তবায়ন|

৬. ভূমি উন্নয়ন করের দাবি নির্ধারণ ও আদায়, মন্ত্রণালয়ে এতদসংক্রান্ত প্রতিবেদন প্রেরণ|

৭. ভূমি সংক্রান্ত সকল কোর্ট কেসসমূহের তদারwক ও তত্ত্বাবধান|

৮. কোর্ট অব ওয়ার্ডস, ওয়াকফ এস্টেটসমূহের ব্যবস্থাপনা ও তদারকি, মন্ত্রণালয়ে এতদসংক্রান্ত প্রতিবেদন প্রেরণ|

৯. জেলা ও থানা পর্যায়ে অর্পিত ও অনাবাসিক পরিত্যক্ত সম্পত্তি সংক্রান্ত কার্যক্রমের তদারকী|

১০. অডিট আপত্তি সংক্রান্ত মাঠ পর্যায়ের তদারwক ও এই সম্পর্কে মন্ত্রণালয়ে প্রতিবেদন প্রেরণ|

১১. বোর্ডের সকল নন-গেজেটেড কর্মকর্তা ও কর্মচারীদের বিভাগীয় মামলা, চাকুরীর আবেদন পুনর্বিবেচনা এবং সরকরি টাকার অপচয় ও আত্মসাৎ সম্পর্কিত বিষয়াদি নিষ্পত্তি এবং এতদসংক্রান্ত বিষয়ে মন্ত্রণালয়ে প্রতিবেদন প্রেরণ|

১২. ভূমি সংস্কার বোর্ডের সকল সংস্থাপন ও হিসাব সম্পর্কিত সাধারণ প্রশাসন|

১৩. ভূমি ব্যবস্থাপনায় মাঠ প্রশাসন সংক্রান্ত বিভিন্ন অভিযোগের তদন্ত কার্য পরিচালনা ও নিয়ম মোতাবেক মন্ত্রণালয়ে প্রতিবেদন প্রেরণ|

১৪. জেলা ও উপজেলা পর্যায়ের রেকর্ড রুম স্থাপন, তদারকি ও উহাদের সংরক্ষণ/ মেরামত সংক্রান্ত ব্যবস্থা গ্রহণ, এতদসংক্রান্ত প্রতিবেদন মন্ত্রণালয়ে প্রেরণ|

১৫. মন্ত্রণালয় বা সরকার কর্তৃক বিভিন্ন সময়ে ন্যস্ত অন্যান্য সংশ্লিষ্ট দায়িত্ব পালন|

এছাড়া ভূমি সংস্কার বোর্ড বিধিমালা ২০০৫-এ উপর্যুক্ত কার্য সম্পাদনের দায়িত্ব প্রদান করা হয়েছে।

 

 

সমস্যা ও সম্ভাবনা

ভূমি সংস্কার বোর্ডের কেন্দ্রীয় কার্যালয় ও বিভাগসমূহে এই প্রতিষ্ঠানের নিজস্ব ভবন না থাকায় মাঝে মধ্যে দুর্ভোগে পড়তে হয়। পর্যাপ্ত জনবলের অভাবও সময়ে সময়ে কিছু কাজে বিঘ্ন সৃস্টি করে। তবু একদল সম্ভাবনাময় কর্মকর্তা ও কর্মচারীর সমন্বয়ে প্রতিষ্ঠনটি সকল বাধা বিপত্তি উৎরিয়ে আপন গন্তব্যে গতিশীল রয়েছে। আধুনিক প্রশিক্ষণ, ডিজিটালােইজেশন ও উদ্ভূত স্থানীয় সমস্যাদির সমাধান করার জন্যে সর্বদা প্রস্তুত রয়েছে এই প্রতিষ্ঠান।


Share with :
Facebook Facebook